সত্যজিৎকে কয়েক লাইন

সেই এক বর্ষার মৌসুম। দিবানিশি সব সময়েই জল ঝরছে। চারদিক দিনের বেলাতেও সন্ধ্যা হয়ে থাকে। কখনও বা নামে মুষলধারা। মেঘের তীব্র ডাকে হঠাৎ চমকে উঠতে হয়। এক দুপুরে বারান্দায় বসে আছি। অদূরে রান্নাঘর। দরজা খোলা। দেখতে পাচ্ছি খুব ধোঁয়া উঠছে। আম্মা আছেন যন্ত্রণায়। ভিজে কাঠে রান্না। বাঁশের চোঙে ফুঁ দিয়ে

সোমেন প্রসঙ্গে

সোমেন চন্দের কোন গল্পটা পড়ে আমি পয়লাবার আপ্লুত হই? স্বপ্ন? একটি গ্রাম্য লোকের মৃত্যুস্বপ্ন সংক্রান্ত কাহিনী। মেনে নেই যে এ লেখক কী অসম্ভব সম্ভাবনা নিয়েই না এসেছিলেন ঢাকা নগরির বুকে, আধুনিকতা, গতি কিংবা জীবন দর্শন—সবকিছুতেই সোমেন ছিলেন বিস্ময়। স্পেনের গৃহযুদ্ধে (১৯৩৬- ১৯৩৯) যখন সে দেশের মাটি ভিজে যাচ্ছে গার্সিয়া লোরকা,

error: লেখাটি ভাল লাগলে শেয়ার করুন